পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পেতে কোথায় যোগাযোগ করতে হয়

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট বিদেশ গমনে ইচ্ছুক কিংবা দেশে চাকরি প্রত্যাশী প্রার্থীদের নিকট একটি অতি পরিচিত নাম। মূলত বিদেশে উচ্চ শিক্ষা কিংবা চাকরি করার গমনের ক্ষেত্রে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট অবশ্যই প্রয়জনীয়। আবার দেশের কিছু কিছু সরকারি চাকরিতেও পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট চাওয়া হয়। তাই কিভাবে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের জন্য আবেদন করতে হয়,  পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পেতে কোথায় যোগাযোগ করতে হয়, সার্টিফিকেট পেতে কত দিন এবং কত টাকা লাগে ইত্যাদি বিষয় গুলো জানা অতি জরুরি।

কারণ এই বিষয় গুলো না জানা থাকার কারণের প্রয়জনের সময় আমরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ি। ক্ষেত্রে বিশেষে অনেকে বিভিন্ন রকমের প্রতারণারও শিকার হই। তাই বিদেশ গমনে ইচ্ছুক কিংবা চাকরি প্রত্যাশী প্রার্থীদের এই বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে আমরা এই আলোচনায় পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের বিষয়টি বিস্তারিত আলোচনা করার চেষ্টা করব ইনশাল্লাহ।

আরও পড়ুন :

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট কি?

চাকরি বা অন্য প্রয়জনে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পেতে কোথায় যোগাযোগ করতে হয় সেই বিষয়ে যাওয়ার আগে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট সম্পর্কে আপনাদের একটি সংক্ষিপ্ত ধারনা দেই। দেশের প্রচলিত আইনে আপনি অভিযুক্ত কোন আপরাধের সাথে যুক্ত কিনা বা সাজা প্রাপ্ত আসামি কিনা সেটা যাচায় করার একটি উপয় হলো পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট। আরও সহজ করে বললে পুলিশ ক্লিয়রেন্স সার্টিফিকেটের অর্থ হলো, কোন ব্যক্তি যে প্রচলিত আইনে অভিযুক্ত অপরাধী নন এবং তার বিরুদ্ধে থানায় কোন অভিযোগ নেই তার পুলিশ কর্তৃক প্রদত্ত প্রমান পত্র। চলুন তাহলে মূল আলোচনায় যাওয়া যাক।

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পেতে কোথায় যোগাযোগ করতে হয়?

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পেতে কোথায় যোগাযোগ করতে হয়

বাংলাদেশে বসবাসকারী কিংবা বিদেশে আবস্থানরত বাংলাদেশী পাসপোর্টধারী ব্যক্তিগণ চাকুরী কিংবা অন্য যে কোন প্রয়জনে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সংগ্রহ করতে পারেন। বাংলাদেশে বসবাসকারী ব্যক্তিগণ পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পেতে তিনি যে জেলায় বাসিন্দা সেই জেলার ডিএসবি অফিসে যোগাযোগ করবেন।

আর যদি তিনি মেট্রোপলিটন এলাকার বাসিন্দা হন তাহলে তিনি পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের জন্য উক্ত মেট্রোপলিটন এলাকার সিটি এসবি অফিসে যোগাযোগ করবেন।

যারা বিদেশে আবস্থান করছেন তারা তাদের নিযুক্ত প্রতিনিধির মাধ্যমে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট সংগ্রহ করতে পারবেন। এই ক্ষেত্রে নিযুক্ত প্রতিনিধিকে বিদেশে আবস্থানরত ব্যক্তি যে জেলার বাসিন্দা সেই জেলার বা মেট্রোপলিটন এলাকার ডিএসবি অফিস বা সিটি এসবি অফিসে যোগাযোগ করতে হবে।

অনলাইন আবেদনের নিয়মাবলী:

অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের আবেদন করার জন্য আবেদনকারী ব্যক্তির সর্বনিম্ন ৩ মাস মেয়াদ সম্পন্ন পাসপোর্ট থাকতে হবে। তবে অন্যের পক্ষে আবেদন করার জন্য আবেদনকারী ব্যক্তির পাসপোর্ট থাকার প্রয়োজন নেই।

প্রথমে আবেদনকারী ব্যক্তিকে https://pcc.police.gov.bd/ords/pcc2/r/pcc/registration লিংকে প্রবেশ করে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। তারপর লগ-ইন করার পর Apply মেনুতে ক্লিক করলে একটি আবেদন ফর্ম ওপেন হবে।

আবেদন ফরমে প্রথম ধাপে আবেদনকারীর অর্থাৎ যার জন্য পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট প্রয়োজন তার ব্যক্তিগত তথ্য যথাযথ ভাবে পূরন করতে হবে। প্রথম ধাপের আবেদন ফর্ম পূরন করার পর দ্বিতীয় ধাপে আবেদনকারীর বর্তমান এবং স্থায়ী ঠিকানা পূরণ করতে হবে। এবং এই তথ্য গুলো আবশ্যই শতভাগ সঠিক এবং নির্ভুল হতে হবে।

তৃতীয় ধাপে আবেদন ফরমের প্রয়োজনীয় সকল ডকুমেণ্টসমূহের স্ক্যান কপি আপলোড করতে হবে।

সকল ডকুমেণ্টসমূহের আপলোড করা হয়ে গেলে চতুর্থ ধাপে আবেদনকারীর প্রদেয় সকল তথ্য পুনরায় দেখানো হবে। প্রদেয় কোন তথ্যে ভুল ক্রুটি পরিলক্ষিত হলে তা পূর্ববর্তী ধাপসমূহে ফেরত গিয়ে সংশোধন করতে। চতুর্থ ধাপে আবেদনটি সাবমিট করার পর আবেদন প্রক্রিয়া সম্পূর্ন হবে।

প্রয়জনীয় ডকুমেন্ট :

১ম শ্রেণীর গেজেটেড কর্মকর্তা দ্বারা সত্যায়িত পাসপোর্টের তথ্য পাতার স্ক্যানকপি
অথবা
বিদেশে অবস্থানকারী বাংলাদেশী নাগরিকগনের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট দেশে বাংলাদেশ দূতাবাস কর্তৃক সত্যায়িত পাসপোর্টের তথ্য পাতার স্ক্যানকপি
অথবা
বিদেশী নাগরিকদের ক্ষেত্রে নিজ দেশের জাস্টিস অব পিস (Justice of Peace) কর্তৃক সত্যায়িত পাসপোর্টের তথ্য পাতার স্ক্যানকপি।

বিদেশে আবস্থানকারী ব্যক্তির ক্ষেত্রে যার মাধ্যমে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সনদ সংগ্রহ করতে চান তার নাম এবং জাতীয় পরিচয় পত্রের নম্বর উল্লেখ করে তাকে সত্যায়ন পূর্বক একটি অনুমতি পত্র (Authorization Letter) আবেদনের সাথে আপলোড করতে হবে।

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের জন্য কত টাকা লাগে?

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের জন্য কোন তৃতীয় পক্ষের (দালাল) সাহায্য না নিয়ে সরাসরি নিজে অনলাইনে আবেদন করলে খুব বেশি টাকার প্রয়োজন হয় না। আপনি যদি নিজে আবেদন করেন সেই ক্ষেত্রে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের জন্য আপনাকে বাংলাদেশ ব্যাংক/ সোনালী ব্যাংকের যে কোন শাখা থেকে (১-৭৩০১-০০০১-২৬৮১) কোডে করা ৫০০/- (পাঁচশত) টাকা মূল্যমানের ট্রেজারী চালান অথবা অনলাইনে ক্রেডিট/ডেবিট কার্ডের মাধ্যমে ফি প্রদান করতে হবে। ফি প্রদান সংক্রান্ত সকল তথ্য এবং নির্দেশনা অনলাইন আবেদন ফরমের নিচে পেয়ে যাবেন।

শেষ কথা :

আশা করি পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পেতে কোথায় যোগাযোগ করতে হয়, কিভাবে অনলাইনে আবেদন করতে হয় প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট এবং কত টাকা লাগে তার একটি স্পস্ট ধারনা দিতে সক্ষম হয়েছি। আর পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট এখন যেহেতু ঘরে বসে অনলাইনে আবেদনের মাধ্যমেই পাওয়া যায় সেহেতু পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট নেওয়ার জন্য কোন তৃতীয় পক্ষকে ধরার ব্যপারে নিরুৎসাহীত করা হল। চাকরি সংক্রান্ত এমন প্রয়জনীয় তথ্য পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।

Visited 27 times, 1 visit(s) today

Leave a Comment