শিক্ষা ক্যাডার থেকে উপসচিব হলে ১০ কলেজ শিক্ষক

শিক্ষা ক্যাডার ১০ সরকারি কলেজ শিক্ষক কে উপসচিব পদে পদোন্নতি দিয়েছে সরকার। সম্প্রতি ১১ নভেম্বর ২০২৩ শনিবার  জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে জারি কৃত প্রজ্ঞাপন মাধ্যমে বিষয়টি জানানো হয়।

রাষ্ট্রপতির নির্দেশক্রমে জারি কৃত প্রজ্ঞাপন থেকে জানা যায় বিসিএস এর বিভিন্ন কর্মকর্তা থেকে ২৪০ জন কে উপসচিব পদে পদোন্নতি দেওয়া হয়েছে। যার মধ্যে দেশের বিভিন্ন সরকারি কলেজের ১০ সহযোগী অধ্যাপকও রয়েছেন।

আরও পড়ুন : স্থগিত হওয়া পিজিসিবি পরীক্ষার নতুন তারিখ ঘোষণা

কারা হলে শিক্ষক থেকে উপসচিব

পদোন্নতি প্রাপ্ত ১০ জন কলেজ শিক্ষকের মধ্যে ২ জন হলেন মহিলা এবং ৮ জন হলে পুরুষ। এবং তারা সকলেই সহযোগী অধ্যাপক থেকে পদোন্নতি পেয়ে উপসচিব হয়েছেন। জারীকৃত প্রজ্ঞাপন আনুসারে সে সব কলেজ শিক্ষক এই বার পদোন্নতি পেয়ে উপসচিব মনোনীত হয়েছেন তারা হলেন, জনাব মরিয়ম বেগম, জনাব রেজিয়া আখতার, জনাব আহম্মদ এহসান উল হান্নান, ড. মো: মতিউর রহমান, জনাব মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, ড. মো: জাহাঙ্গীর আলম খান, জনাব মো: আব্বাস উদ্দিন, জনাব এম এ মোস্তফা জামাল চৌধুরী, জনাব মোঙ্গল চন্দ্র পাল, জনাব মো: সিদ্দিকুর রহমান তালুকদার।

শিক্ষা ক্যাডার থেকে উপসচিব

আরো পড়ুন : লাইব্রেরিয়ান কোর্সে মাস্টার্সের সুযোগ দিচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

শিক্ষকদের পদোন্নতি

শিক্ষা ক্যাডার থেকে প্রশাসনের পদোন্নতি একদম বিরল না হলেও খুব কমই দেখা যায়। তবে এইবার শিক্ষা ক্যাডার থেকে বড় পরিসরে প্রশাসনিক পদে এ পদোন্নতি দেওয়া হলো। প্রজ্ঞাপন মত ২৪০ জন কে পদোন্নতি জন্য সুপারিশ করা হয়েছে। যার মধ্যে বেশি চেয়ে বেশি সংখ্যায় রয়েছে প্রশাসন ক্যাডার। প্রশাসন ক্যাডার থেকে এইবার উপসচিব পদে পদোন্নতি দেওয়া হয়েছে ১৭৮ জন কর্মকর্তাকে। ঠিক এর পরের স্থানেই রয়েছে শিক্ষা ক্যাডারগণ।

নতুন এই প্রজ্ঞাপনটিতে পদোন্নতি ক্ষেত্রে ২৯তম বিসিএসের প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তাদের বেশি বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন বিসিএসের অন্যান্য কর্মকর্তারাও এ উপসচিব পদে পদোন্নতি দেওয়া হয়েছে।

পদোন্নতি দিয়ে নিয়ম অনুযায়ী সুপারিশ কৃত এই ২৪০  জন কর্মকর্তাকে ওএসডি করা হয়েছে। পরবর্তীতে আলাদা আদেশে পরে তাদের পদায়ন করা হবে। শেখ সামসুল আরেফিন, সিনিয়র সহকারী সচিব কর্তৃক স্বাক্ষর কৃত প্রজ্ঞাপনটিতে সরকারের উপসচিব পদে পদোন্নতি প্রাপ্ত কর্মকতাদের যোগদান পত্র sa1@mopa.gov.bd ঠিকানায় প্রেরণ করতে বলা হয়েছে।

Visited 78 times, 1 visit(s) today

Leave a Comment